পুঁজিবাজার

তিন প্রতিষ্ঠানের লভ্যাংশ ঘোষণা

  • অর্থবাজার প্রতিবেদন
  • প্রকাশিত ৩১ মার্চ ২০২২

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত তিন প্রতিষ্ঠানের লভ্যাংশ ঘোষণা করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের (ইউসিবি), যমুনা ব্যাংক ও ন্যাশনাল হাউজিং।

প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্তৃপক্ষের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের (ইউসিবি) : ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদ ২০২১ সালের সমাপ্ত বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের সাড়ে ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অর্থাৎ, কোম্পানিটির শেয়ারহোল্ডাররা লভ্যাংশ হিসেবে প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে নগদ এক টাকা করে পাবেন।

ডিএসই জানিয়েছে, ২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি মুনাফা করেছে ১ টাকা ৯২ পয়সা।

এ মুনাফার ওপর ভিত্তি করেই ইউসিবি ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এতে প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে লভ্যাংশ হিসেবে কোম্পানিটিকে এক টাকা দিতে হবে। অর্থাৎ, মুনাফার ৫২ শতাংশ কোম্পানিটি লভ্যাংশ হিসেবে শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে বিতরণ করবে।

এ লভ্যাংশের বিষয়ে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদের নেওয়া সিদ্ধান্ত শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য বার্ষিক সাধারণ সভার (এজিএম) তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ৯ জুন। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৫ এপ্রিল।

যমুনা ব্যাংক: যমুনা ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ ২০২১ সালের সমাপ্ত বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের সাড়ে ১৭ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অর্থাৎ কোম্পানিটির শেয়ারহোল্ডাররা লভ্যাংশ হিসেবে প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে নগদ এক টাকা ৭৫ পয়সা করে পাবেন।

ডিএসই জানায়, ২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ৩ টাকা ৩৫ পয়সা। এ মুনাফার ওপর ভিত্তি করেই যমুনা ব্যাংক সাড়ে ১৭ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এতে প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে লভ্যাংশ হিসেবে কোম্পানিটিকে ১ টাকা ৭৫ পয়সা দিতে হবে।

অর্থাৎ মুনাফার ৫২ শতাংশ কোম্পানিটি লভ্যাংশ হিসেবে শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে বিতরণ করবে। বাকি ৪৮ শতাংশ মুনাফার ভাগ পাওয়া থেকে বঞ্চিত হবেন তারা।

এ লভ্যাংশের বিষয়ে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদের নেওয়া সিদ্ধান্ত শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য বার্ষিক সাধারণ সভার (এজিএম) তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১৪ জুন। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২১ এপ্রিল।

ন্যাশনাল হাউজিং : ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্সের পরিচালনা পর্ষদ ২০২১ সালের সমাপ্ত বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ১৬ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

অর্থাৎ, কোম্পানিটির শেয়ারহোল্ডাররা লভ্যাংশ হিসেবে প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে নগদ এক টাকা ৬০ পয়সা করে পাবেন।

ডিএসই জানিয়েছে, ২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে দুই টাকা ২৩ পয়সা।

এ মুনাফার ওপর ভিত্তি করেই ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স ১৬ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এতে প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে লভ্যাংশ হিসেবে কোম্পানিটিকে এক টাকা ৬০ পয়সা দিতে হবে।

অর্থাৎ, মুনাফার ৭২ শতাংশ কোম্পানিটি লভ্যাংশ হিসেবে শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে বিতরণ করবে। বাকি ২৮ শতাংশ মুনাফার ভাগ পাওয়া থেকে বঞ্চিত হবেন তারা।

এ লভ্যাংশের বিষয়ে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদের নেওয়া সিদ্ধান্ত শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের জন্য বার্ষিক সাধারণ সভার (এজিএম) তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২ জুন। আর রেকর্ড ডেট নির্ধারণ হয়েছে ২০ এপ্রিল।

 

আরও পড়ুন



Arthobazar